1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় বিকাল ৫:২৫ আজ বৃহস্পতিবার, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি




ডা. আ. রাজ্জাক শিশু নিকেতনের পরিচালক ঋণের টাকা পরিশোধ করেও ঋণমুক্ত হতে পারেনি

  • সংবাদ সময় : সোমবার, ৯ আগস্ট, ২০২১
  • ৪১৩ বার দেখা হয়েছে

প্রতিনিধি, গাইবান্ধা:
গাইবান্ধার সাঘাটায় ঋণ ও সুদের টাকা পরিশোধ করা সত্বেও তার স্বাক্ষর জাল করে ভুয়া কাগজ সৃজনের মাধ্যমে সুদের টাকা দাবি করছে দাদন ব্যবসায়িরা। ফলে দাদন ব্যবসায়ির প্রাণনাশের হুমকিতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন উপজেলার জুমারবাড়ী ডাঃ আব্দুর রাজ্জাক শিশু নিকেতনের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক মোঃ রেজাউল করিম। সোমবার গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে তিনি জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, থানা কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে প্রতিকারসহহ দাদন ব্যবসায়িদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে রেজাউল করিম লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, সুদের সমুদয় টাকা পরিশোধের দীর্ঘ প্রায় ২০ মাস পর দাদন ব্যবসায়ি আশিদুল ইসলাম সাঘাটা উপজেলার জুমারবাড়ী এলাকার অন্যান্য দাদন ব্যবসায়ি ময়নুল ইসলাম, সমির হোসেন ও খায়রুল ইসলামসহ আরও কিছু লোকজনকে সাথে নিয়ে তাকে আবারো দাদনের সুদের টাকার জন্য মারপিট ও প্রাণনাশের হুমকি-ধামকি দেয়।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও উল্লেখ করেন, উপজেলার আমদিরপাড়া গ্রামের নবীর হোসেন ঝালুর ছেলে দাদন ব্যবসায়ি আশিদুল ইসলাম জুমারবাড়ী ডাঃ আব্দুর রাজ্জাক শিশু নিকেতনের আবাসিকের চাল সরবরাহ করার মাধ্যমে সুকৌশলে তার সাথে সখ্যতা গড়ে তোলে। ওই প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো নির্মাণ ও শিক্ষার্থী পরিবহনের জন্য পিকআপ কেনার জন্য টাকার প্রয়োজন হলে আশিদুল ইসলাম তাকে পর্যায়ক্রমে ২০১৭-২০১৮ সালে মাসিক সুদের উপর প্রায় ৬৫ লাক্ষ টাকা দেয়। তিনিও পর্যায়ক্রমে আশিদুলকে সুদ-আসলসহ লভ্যাংশের সম্পুর্ণ টাকা ২০১৯ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর স্কুলের স্টাফ ও একাধিক ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে সমস্ত হিসাব-নিকাশ চুড়ান্ত করে আশিদুলের পাওনাকৃত সমুদয় টাকা পরিশোধ করেন। কিন্তু সুদের টাকা পরিশোধের পরেও দাদন ব্যবসায়ি আশিদুল কাগজপত্র জাল করে পুনরায় টাকা দাবি করায় গত ১ জুন তিনি বিষয়টি নিয়ে জুমারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম্য আদালতে অভিযোগ দায়ের করে। গ্রাম্য আদালত আশিদুল ইসলামের দাখিলকৃত কাগজত্রের মূলকপি একাধিকবার নোটিশের মাধ্যমে চাইলেও সে মূল কাগজপত্র গ্রাম্য আদালতে জমা না দিয়ে এলাকার দাদন ব্যবসায়ীদের সাথে নিয়ে আশিদুল বিভিন্ন সময়ে তার পথরোধ করে তাকে মারপিটসহ হত্যার হুমকি প্রদান করে এবং তার পরিবার ও তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষতিসাধন করার হুমকি-ধামকি দেয়। এই বিষয়ে গাইবান্ধার সাঘাটা থানায় তিনি একটি সাধারণ ডায়েরি (নং ১১৯২) করেন। এ অবস্থায় তিনি পরিবার-পরিজন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জুমারবাড়ি ডাঃ আব্দুর রাজ্জাক শিশু নিকেতনের প্রধান শিক্ষক শ্যামলী বেগম, সহকারী শিক্ষক মো. সাব্বির হোসেন সুমন, ম্যানেজার রনজিত কুমার, ক্যাশিয়ার মো. আব্দুল মমিন প্রমুখ।

 




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ