1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় দুপুর ১:৫১ আজ সোমবার, ৯ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি




৩ ফিফটিতে দিন শেষ করলো বাংলাদেশ

  • সংবাদ সময় : বুধবার, ৭ জুলাই, ২০২১
  • ১০৩ বার দেখা হয়েছে

হারারেতে সিরিজের ১ম টেস্টের ১ম দিনশেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৮ উইকেট হারিয়ে ২৯৪ রান। ইনিংসের শুরুতে বিপদে পড়লেও, সামাল দিয়েছেন মুমিনুল হক, লিটন দাস ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে দিনের শেষভাগে পরপর ২ বলে আবারো ২ উইকেট হারিয়ে ১ম দিনের নিয়ন্ত্রণ হারায় টাইগাররা।

লিটন দাস আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ভালোই খেলছিলেন। দু’জন মিলে শুরুর বিপদ ভালোভাবেই সামাল দেন। তবে সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৫ রান দূরত্বে থাকতে খেই হারান লিটন দাস। তার পরের বলেই আউট হয়ে যান মেহেদি মিরাজও।এর আগে হারারেতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে স্বাগতিক পেসারদের বোলিং তোপে দিশেহারা হয়ে পড়ে বাংলাদেশ। ইনিংসের ১ম ওভারেই রানের খাতা খোলার আগে বিদায় নেন তরুণ ওপেনার সাইফ হাসান। মুজারাবানির বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।এরপর তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামেন আরেক তরুণ ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে তিনিও দিতে পারেন নি আস্থার প্রতিদান। আরেকবার ব্যাট হাতে ব্যর্থ তিনি। মুজারাবানির শিকার হন তিনিও। স্লিপে সহজ ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেয়ার আগে তার সংগ্রহ মাত্র ২ রান।

মাত্র ৮ রানে ২ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে বাংলাদেশ। সেখান থেকে দলকে উদ্ধার করার চেষ্টা চালান অধিনায়ক মুমিনুল হক ও সাদমান ইসলাম। দু’জনে মিলে গড়েন ৬০ রানের জুটি। তবে বিরতিতে যাওয়ার আগমুহুর্তে, দলীয় ৬৮ রানে এনগ্রাভার বলে কট বিহাইন্ড হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন সাদমান।বিরতি থেকে ফিরে বেশিক্ষণ টিকতে পারেন নি মুশফিক। মুজারাবানির বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে উইকেট বিলিয়ে আসেন এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। তার সংগ্রহ ১১ রান।

মাত্র ৬ বলের ব্যবধানে উইকেট বিলিয়ে দেন সাকিব আল হাসানও। দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলের হয়ে টেস্ট খেলতে নেমে ব্যাট হাতে ব্যর্থ তিনি। নাউচির বলে কট বিহাইন্ডের শিকার হয়ে মাত্র ৩ রান করে মাঠ ছাড়েন তিনি।

দলের ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মধ্যে একপ্রান্ত আগলে দাঁড়িয়ে ছিলেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। তবে ৭০ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন তিনি। আউট হওয়ার আগে বেশ সাবলীলভাবেই ব্যাট চালাচ্ছিলেন মিমি। ৭০ রানের ইনিংসে হাঁকান ১৩টি বাউন্ডারি। তবে তার আউটটা বেশ দৃষ্টিকটুই ছিলো। অফ স্ট্যাম্পের বেশ বাইরের বল কাট করতে গিয়ে স্লিপে দাঁড়ানো মেয়ার্সের হাতে ধরা পড়েন তিনি।

১৩২ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নেন লিটন দাস ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দুজনে মিলে গড়েন ১৩৮ রানের জুটি। ৯৫ রান করে সেঞ্চুরি বঞ্চিত হন লিটন দাস।

লিটনের আউট হওয়ার পরের বলেই আউট হয়ে যান মেহেদি মিরাজ।

তবে একপ্রান্ত আগলে রেখে ফিফটি তুলে নেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তার সঙ্গী ছিলেন তাসকিন আহমেদ। দিনশেষে রিয়াদের সংগ্রহ ৫৪ আর তাসকিন অপরাজিত আছেন ১৩ রানে।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ