1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় সকাল ৬:০১ আজ বৃহস্পতিবার, ৫ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি




’চরের গরু ’ অনলাইন কুরবানি হাটের উদ্বোধন করলেন মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী

  • সংবাদ সময় : সোমবার, ৫ জুলাই, ২০২১
  • ২২৫ বার দেখা হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্ট: করোনা সংকটকালীন গাইবান্ধা ও কুড়িগ্রাম জেলার  ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, তিস্তা নদীর তীর ও চরাঞ্চলের পরিবারগুলোর অন্যতম সম্পদ কুরবানির গরু বিক্রির জন্য অনলাইন হাটের উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে ভার্চুয়ালি এই হাটের উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী শ.ম রেজাউল করিম এমপি।  অনুষ্ঠানে যুক্ত ছিলেন বাংলাদেশ ডেইরি ফার্ম এসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ ইমরান হোসেন,  বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গণ উন্নয়ন কেন্দ্র (জিইউকে) এর প্রতিষ্ঠাতা প্রধান নির্বাহী এম. আবদুস সালাম, পরিচালক আবু সায়েম জান্নাতুন নুর রিশাদ, ভালোকিনি ডটকমের সিইও কেরামত উল্লাহ বিপ্লবসহ  এবং গাইবান্ধার চর-গ্রামের ক্ষুদ্র গরুর খামারীরা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গাইবান্ধা ও ঢাকার গণমাধ্যম কর্মীরাও যুক্ত হন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী শ.ম রেজাউল করিম এই চরের জনগণের জন্য এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, এই সংকটকালীন জনগণের সম্পদ বাড়িতে থেকেই নায্যমূল্য মূল্যে বিক্রি করার জন্য আর দুঃশ্চিন্তা করতে হবে না। বর্তমান সরকার আসন্ন কোরবানীর ঈদে এই পদ্ধতির সাথে সকল গরুর মালিকদের যুক্ত হওয়ার আহবান করেছেন। এছাড়াও ভারত থেকে এবার কোন গরু দেশে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না জানিয়ে বলেন, দেশের মানুষের কষ্টে-ক্লিষ্টে বড় করা গরু দিয়ে এবারের কোরবানী করতে হবে। তিনি আরো জানান, বেসরকারি সংস্থা গণ উন্নয়ন কেন্দ্র স্থানীয়ভাবে মানুষের কাছে গিয়ে যেভাবে গরুগুলো বিক্রিতে সহযোগিতা করছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবী রাখে।  অনলাইন পশুর হাটে ক্রেতা-বিক্রেতারা যাতে করে কোন ধরণের ঝামেলা বা বিরম্বনায় না পড়তে হয় এজন্য এই বর্তমান সরকার ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রণালয়ের বিশেষ দৃষ্টি রয়েছে বলে জানান।

অনলাইন বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান ভালোকিনি ডটকম বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গণ উন্নয়ন কেন্দ্রের সাথে যৌথভাবে এই অনলাইন হাটে কুড়িগ্রাম ও গাইবান্ধার ৪০টি চরগ্রামের ৪০০ গরু বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে। যাতে কৃষকরা তাদের গরু সরাসরি রাজধানীর বিক্রেতাদের কাছে ন্যায্যদামে বেচতে পারবেন।

 

 




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ