1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় সকাল ৬:০১ আজ মঙ্গলবার, ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি




হবু বধূ পছন্দ না হওয়ায় হবূ বর ব্যাংক কর্মকর্তা আত্মগোপন অত:পর ঢাকা থেকে উদ্ধার!

  • সংবাদ সময় : বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১
  • ১৯৬ বার দেখা হয়েছে

আফতাব হোসেন:
অভিভাবকের দেখা হবু বধূকে পছন্দ না হওয়ায় পালিয়ে আত্মগোপনে গিয়ে বেশ বেকায়দায় ফেলেছিলেন দায়িত্বশীল এক ব্যাংক কর্মকর্তা ও হবু বর। গাইবান্ধার  পলাশবাড়ীর সোনালী ব্যাংক শাখার সিনিয়র অফিসার আবু সুফিয়ান (৩১) নিখোঁজের সাতদিন পর ঢাকার আদাবর থানা এলাকার একটি বাড়ি থেকে পুলিশ উদ্ধার করে। পুলিশ কর্তৃক উদ্ধারের পর ব্যাংক কর্মকর্তা জানান নিজের মতামতের  বিষয়টি অভিভাবকদের বলতে না পারায়  তিনি স্বেচ্ছায় আত্মগোপন করেছিলেন।  বৃহস্পতিবার গাইবান্ধা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।
প্রেস ব্রিফিংয়ে উল্লেখ করা হয়, গত ২৪ জুন বিকেলে নিজের বিয়ের কেনাকাটার জন্য আবু সুফিয়ান গোবিন্দগঞ্জ থানায় যান। পরে তিনি রাত সাড়ে ৮টার সময় তার বাড়ি ফিরতে দেরী হবে বলে বিষয়টি পরিবারের লোকজনকে জানায় এবং এরপর থেকেই তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ হয়ে যায়। ব্যাংক কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান বাড়িতে ফিরে না আসলে তার ভগ্নিপতি মো. জাহিদুর রহমান বাদি হয়ে গত ২৫ জুন পলাশবাড়ী থানায় তাঁর নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার একটি জিডি করেন। এরপর থেকেই গাইবান্ধা জেলা পুলিশ অনুসন্ধান শুরু করে। আত্মগোপনের বিষয়টি নিয়ে পরিবারের স্বজনদের পাশাপাশি বেশ চিন্তত হয়ে ব্যাংকের সহকর্মীরাও। এছাড়াও বিষয়টি  মিডিয়াতেই আসে। গাইবান্ধার সহকারী পুলিশ সুপার (সি সার্কেল) উদয় কুমার সাহা ও পলাশবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুদুর রহমানের তত্ত্বাবধানে থানার একটি দল ইন্সপেক্টর (তদন্ত), মো. মতিউর রহমান, এসআই (নি:) সঞ্জয় কুমার সাহা, এএসআই (নি:) রাম চন্দ্র প্রাং, এএসআই (নি:) মো. হুমায়ন কবির ও ফোর্সদের সহায়তায় অনুসন্ধান ও অভিযান চালিয়ে মোবাইল ট্রাকিং প্রযুক্তির মাধ্যমে নিখোঁজ আবু সুফিয়ানকে গত ৩০ জুন বুধবার ঢাকার আদাবর থানার রোড ৩, ৩১নং একটি বাড়ির নিচ তলা থেকে উদ্ধার করে।
প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, তার নিজ বিবাহের আগের দিন গোবিন্দগঞ্জে কেনাকাটা করতে যাওয়ার পরে বিভিন্ন মানসিক টেনশনে সিদ্ধান্ত হীনতায় পড়ে নিজেই মোবাইল ফোন বন্ধ করে মাইক্রোযোগে ঢাকায় চলে যায় এবং স্বেচ্ছায় আত্মগোপন করে। পরে তার অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হয়।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ