1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় বিকাল ৪:৫৮ আজ রবিবার, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৮শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি




রংপুরে সুপারী ব্যবসায়ী মিজানের মৃতদেহ উদ্ধার

  • সংবাদ সময় : বুধবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১২২ বার দেখা হয়েছে
রংপুর প্রতিনিধিঃ আজ (বুধবার) সকালে রংপুর নগরীর ৩২ নং ওয়ার্ড দোলাপাড়া এলাকায় আবাদী জমি থেকে সুপারী ব্যবসায়ী মিজানের মৃতদেহ উদ্ধার করে রংপুর তাজহাট থানা পুলিশ।। এলাকাবাসী জানায় সকালে আবাদী জমি দেখতে গেলে একটি পুরুল লোককে পড়ে থাকতে দেখা যায়, কাছে গেলে দেখা যায় লোকটি মারা গেছে তখন তাজহাট থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হয় এবং খবর পাওয়া মাত্রই তাজহাট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রবিউল ইসলাম ও মোবাইল—২১ কর্মরত এসআই ওবায়দুল হক সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। এসআই ওবায়দুল হক জানায় মৃত ব্যক্তি রংপুর নগরীর মধ্য বাঁবুখা এলাকার মৃত. রইচ উদ্দিনের ছেলে সুপারি ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান মিজান (৪২)।
এ বিষয়ে মৃত মিজানের বড় ভাই মোখলেছুর রহমান জানান— ব্যবসার কাজে আমার ভাই গত মঙ্গলবার ঢাকা থেকে বাড়িতে পৌঁছায় এবং ঐ দিন দুপুরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসে সারাদিন তার সাথে আমার আর কোন যোগাযোগ হয়নি, আমি আমার ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে ছিলাম কিন্তু হঠাৎ সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে স্ত্রীর ফোন করে বলে মিজান নাকি নগরীর ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট এর সামনে পড়ে আছে, বাসায় আসতে পারছে না। খবর পাওয়া মাত্রই আমরা পরিবারের লোকজন সংশ্লিষ্ট এলাকায় তাকে অনেক খোঁজাখুজি করি কিন্তু সন্ধান পাই নাই।
আরেক বড় ভাই মনু মিয়া জানায়— আমরার খবর পাওয়া মাত্রই উক্ত স্থানে গিয়ে তাকে খোঁজাখুজি করি কিন্তু পাই না, এমতাবস্থায় সকালে মিজানের শালকের ফোনে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি ফোন করে বলে তোর দুলা ভাই এখানে আছে নিয়া যা, আমরা গিয়ে দেখি এলাকাবাসী উক্ত স্থানে ভীড় হয়েছে এবং মিজান মৃত অবস্থায় মাটিতে পড়ে আছে। মিজানের শালক রাকিব মিয়া বলেন— আমি কালরাতে বোনের ফোন পেয়ে তাকে খুজতে শুরু করি কিন্তু রাত ২টা পর্যন্ত তাকে পাই না সকালে এক ব্যক্তি আমাকে ফোন করে তারপর আমরা খোজ পেয়েছি।
শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শন পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস প্রদান করেছেন রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ—পুলিশ কমিশনার মোত্তাকী ইবনে মিনাল, সহকারী উপ—পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) শহীদুল্লাহ কাওছার, সহকারী পুলিশ কমিশনার (কোতয়ালী জোন) আলতাব হোসেন।
এ বিষয়ে তাজহাট থানার অফিসার ইনচার্জ আখতারুজ্জামান প্রধান বলেন— তাজহাট থানা পুলিশ খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করেছে, পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লাশ ময়না তদন্তের পর পরিবারের হাতে হস্তান্তর করা হবে। বিষয়টি নিয়ে আমরা নিখুতভাবে অনুসন্ধান করব এবং হত্যার সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনা হবে।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ