1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় সন্ধ্যা ৭:২৩ আজ সোমবার, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি




বগুড়ার আদালতে জাল কাগজ দাখিল করায় বাদীর বিরুদ্ধে  গ্রেফতারী পরোয়ানা

  • সংবাদ সময় : বুধবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১২৫ বার দেখা হয়েছে

ইমরান হোসাইন লিখন প্রতিনিধি:

বগুড়ায় আদালতে জাল কাগজ দাখিল করায় মামলার তিন বাদীর বিরুদ্ধে মামলা ও গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছে চিপ জুডিশিয়াল মেজিষ্ট্রেট।
ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালে জমির জাল কাগজপত্র দাখিলের ঘটনা প্রমাণিত হওয়ায় এ রায় ঘোষনা করেন আদলাত। বগুড়া ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী আবুল কাসেম বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। বিবাদীরা হলেন, বগুড়া জেলার শাজাহানপুর থানার দেশমা গ্রামের মৃত ফকির উদ্দিন প্রামাণিকের তিন পুত্র মোঃ মোজাম্মেল হোসেন, মোঃ মনির উদ্দিন ও মোঃ মালেক। আদালত সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া জেলা ল্যান্ড সার্ভে ট্রাব্যুনালে ২০১৭ সালের ৩ মে বগুড়া জেলার শাজাহানপুর থানার দেশমা গ্রামের মৃত ফকির উদ্দিন প্রামাণিকের তিন পুত্র মোঃ মোজাম্মেল হোসেন, মোঃ মনির উদ্দিন ও মোঃ মালেক বাদী হয়ে একই গ্রামের মৃত হাছেন আলীর পুত্র মোঃ মোকছেদ আলী, বগুড়ার জেলা প্রশাসক, সেটেলমেন্ট কর্মকর্তা, ভূমি কর্মকর্তাসহ ৭জনকে বিবাদী করে জেলার শাজাহানপুর থানার দেশমা মৌজার আর এস ২৯৫ ও ৫০৩ নং খতিয়ানের ৬১ শতক সম্পত্তি দাবী করে মামলা দায়ের করেন। আদালত শুনানী ও কাগজপত্র পর্যালোচনা করে দেখতে পান, ওই মৌজার গেজেট ২০০৫ সালের ৭ এপ্রিল প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু বাদী পক্ষ মামলা করেছেন ২০১৭ সালের ৩মে। আইন মোতাবেক খতিয়ানের গেজেট প্রকাশের এক বছরে মধ্যে এবং তামাদি আইন অনুযায়ী পরবর্তী এক বছরের মধ্যে মামলা দায়েরের নিয়ম থাকলেও প্রায় ১২ বছর পরে মামলা দায়ের হওয়ায় তা খারিজ হয় এবং খতিয়ান দুটি জাল ও যোগসাজসীভাবে প্রস্তুত করে আদালতে জমা দেয়ায় বাদীগনের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বিবাদী পক্ষ প্রার্থনা করায় তা মন্জুর করে ফৌজদারী আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বগুড়া চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নথি প্রেরন করা হয়। ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালের বিচারক শামছুল আরেফীন এ আদেশ দেন। আদালতের আদেশের প্রেক্ষিতে বগুড়া ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী আবুল কাসেম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এ ঘটনায় আদালত ও আইনজীবিরা হতবাক হয়েছেন।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ