1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় রাত ১১:৫৮ আজ বুধবার, ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি




গাইবান্ধায় স্বামীর বিরুদ্ধে ভূয়া কাবিননামা দেখিয়ে আদালতে স্ত্রীর মামলা

  • সংবাদ সময় : সোমবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১১৪ বার দেখা হয়েছে
গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
গাইবান্ধায় স্বামীর বিরুদ্ধে ভূয়া কাবিননামা দেখিয়ে বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতে স্ত্রী তাপসী খাতুনের পিটিশন মামলা দায়ের করা হয়েছে।
জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার পৌর বন্দরের পান্থাপাড়া (দূর্গাপুর) গ্রামের রঞ্জু মিয়ার ছেলে আব্দুস সালাম (২৪) এর সহিত পার্শ্ববতী সাঘাটা উপজেলার কচুয়া ইউনিয়নের চন্দন পাঠ গ্রামের আহম্মদ আলীর মেয়ে মোছাঃ তাপুসী খাতুন (২০) এর সাথে ২০১৮ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রেজিষ্টেরী নিকাহ্নামা মূলে ইসলামী শরিয়ত মোতাবেক বিবাহ হয়। বিবাহের পর আব্দুস সালাম জানতে পারে তার শ্বশুড়ের পরিবার ঠক, প্রতারক, অর্থলোভি। তাকে বিভিন্ন সময় স্ত্রী তাপুসী খাতুনের দেন মোহর বৃদ্ধির কথা বলতে থাকে শ্বশুর পরিবারের লোকজন। দেন মোহরানা বৃদ্ধি না করলে তাদের মেয়েকে ঘর সংসার করিতে নিষেধ করে। এমতাবস্থায় এসব চলতে থাকলে তাপুসীর বড় ভাই আকরাম হোসেন (৩২), গত ২৮ সেপ্টেম্বর/১৮ ইং তারিখে তাপুসীকে নাইওরের কথা বলে নিয়ে যেয়ে তাকে আটকে দেওয়া হয়। স্ত্রী নাইওর যাওয়ার পর সালাম তাকে নিয়ে আসতে যায় ২০১৯ সালের ১৫ ডিসেম্বর দুপুর ১২ টার দিকে শ্বশুড় বাড়ীতে। স্ত্রীকে তার সহিত না পাঠানোর জন্য স্ত্রী সহ তার শ্বশুড় পরিবারের লোকজনের সাথে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। এ কারণে কামালের পাড়া ইউনিয়নের নিক্হা ও তালাক রেজিষ্ট্রারের সাথে যোগসাজস করে ০৭-০২-২০১৯ ইং তারিখে ৭ লাখ টাকার ভূয়া কাবিননামা দেখিয়ে গাইবান্ধা বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে-০২, পিটিশন মামলা দায়ের করা হয়। যাহার পিটিশন নং-৮৯/২০১৯। পরবর্তীতে নারী ও শিশু নং-১৫/২০ একটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১১ (খ)/৩০ ধারায় মামলা দায়ের করে। বিজ্ঞ আদালত উক্ত মামলা তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য গাইবান্ধা সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসারকে নির্দেশ দেন। কিন্তু সমাজসেবা কর্মকর্তা উক্ত মামলার আসামীকে নোটিশ ও মৌখিক ভাবে না ডেকে বাদী পক্ষের একক জবানবন্দি গ্রহণ করে ০২-১২-১৯ ইং তারিখে বিজ্ঞ আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। স্ত্রী ও শ্বশুড় পরিবারের লোকজন প্রতারণা করে আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করায় নিরুপায় হয়ে আব্দুস সালাম গাইবান্ধা সাঘাটা বিজ্ঞ আমলী আদালতে পিটিশন নং ১৪২/২০ মামলা দায়ের করেন। যার ধারা ৪০৬/৪২০/৪১৯/৪৬৭/৪৬৮/৩৪ দঃবিঃ।
আব্দুস সালাম বলেন, ০৭-০২-১৯ ইং তারিখে আদৌ কাজী অফিসে যাই নাই কিংবা নিক্হা রেজিষ্ট্রারে স্বাক্ষর করি নাই। তারা পর সম্পদ অর্থলোভি হওয়ায় প্রকৃত নিক্হা রেজিষ্ট্রারি গোপন করে ভূয়া কাবিননামা মুলে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন। তিনি আরো বলেন, বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে প্রতারণা করে মিথ্যা মামলার সাথে জড়িত সকলকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবী জানান।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ