1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় রাত ১:০৭ আজ শুক্রবার, ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি




এ্যাড. আসাদুল হকের মরদেহ মিঠাপুকুরে পারিবারিক কবরস্থানে সমাহিত

  • সংবাদ সময় : রবিবার, ৭ জুন, ২০২০
  • ১২৫ বার দেখা হয়েছে

এম.এ.জলিল-রংপুর প্রতিনিধি॥
গত শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে রংপুর নগরীর মর্ডাণমোড় তাজহাট মেট্রোপলিটন থানাধীন ৩২ নং ওয়ার্ডের ধর্মদাসবার আউলিয়া, গ্রামে নিজ বাড়িতে রংপুর জর্জ কোটের এ্যাডভোকেট আসাদুল হক (৬০) কে ছুড়ি দিয়ে গলা ও পেট কেটে হত্যা করেছে দূরবিত্তরা
সংবাদ পেয়ে রংপুর তাজহাট থানা পুলিশ এসে বাড়ি থেকে এ্যাডভোকেট এর মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনা স্থাল থেকে রতন (২৫) পিতা- মৃত জাফর ড্রাইভারে ছেলে কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আটক কৃত রতন একই গ্রামের বাসিন্দা। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হলে গতকাল শনিবার তার শুরতহাল শেষে দুপুরের দিকে পুলিশ হেফাজতে ধর্মদাস বারআউলিয়া গ্রামের নিজ বাসাসয় ধর্মমীয় অনুষ্ঠান শেষে তার অসিয়ত আনুজায়ি অত্রএলাকার ঈদগামাঠে বিকাল ৩টার সময় সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যব্যধী মেনে প্রথম যানাযা করা হয় । জানাজা করেন ধর্মদাস বার আউলিয়া জামে মসর্জিদের খতিম এমদাদুল হক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রংপুর তাজহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ রোকোনুজ্জামান, ৩২নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউনসিলর ও আবুল কাশেম, রংপুর বার সমিতির , সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুল হক মাহামুদ, অত্র এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম, সহ গ্রামের মান্যগণ্য ব্যক্তি। জানাজা শেষে তার বড় ভাই ও পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ্যাডভোকেট এর মরদেহ গ্রামের বাড়ি মিঠাপুকুর উপজেলার বালুয়া ছড়ান এলাকায় পারিবারিক কবরস্থানে সমাহিত করা হবে। সে সময় সবার উদ্দোশ্য
(ওসি) শেখ রোকোনুজ্জামান বলেন আমরা শোকাহত ও মর্মাহত এই হত্যাকান্ডে ,গত কাল রাতেই আরো দুজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি এবং তিনি বলেন এই আইনজীবীর সাথে আমার ভালো সর্ম্পক ছিলো আমি সর্বচ্চ তদন্ত করে বিষয়টি খতিয়ে দেখবো এবং এই খুনের সাথে আরকেউ জরিত আছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে তিনি জানান।
এই আইনজীবীর দুই মেয়ে ও স্ত্রী, বড় মেয়ে আস্ট্রোলিয়া প্রবাসী। তিনি ছোট মেয়ে ও স্ত্রী কে নিয়ে রংপুর ধর্মদাস বার আউলিয়ার বাসায় থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি মিঠাপুকুর উপজেলার বালুয়া ছড়ান।

পুলিশ ও এলাকাবাসীর সুত্রে জানা গেছে ইতি পুর্বে একই এলাকার (পাশাপাশি বাড়ি) মৃত জাফর ড্রাইভারের ছেলে রতন (২৫) নামে আসাদুল হকের বাসায় চুরি করে ধরা পড়েছে এবং সকলে তার বিচার করে ছেড়ে দিয়েছে। আজও, হয়তো চুড়ি করতে গিয়ে ধরা পরে গিয়ে নিজেকে বাচাঁতে গিয়ে হাতে থাকা ছুড়ি দিয়ে গলায় ও পেটে টান মারে এতে করে ঘটনাস্থলেই আসাদুল হক মারা যায় । ভয় পেয়ে রতন দেয়াল টপকে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় কয়একজন যুবক রতনকে আটক করে তাজহাট থানা পুলিশের কছে তুলেদেয়। জানা জায় রতন মাদাকসক্ত ও একধিক মামলাও আছে বলে জানা জায়।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ