1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় রাত ২:০৯ আজ রবিবার, ১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি




মাধবপুরে কিসমত রেস্তোরাতে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার বিক্রি

  • সংবাদ সময় : সোমবার, ১ জুন, ২০২০
  • ২৯২ বার দেখা হয়েছে
লিটন বিন ইসলাম,মাধবপুর প্রতিনিধিঃ
হবিগঞ্জের মাধবপুর পৌর বাজারে কিসমত রেস্তোরাতে অবাধে বিক্রি করা হচ্ছে পচা-বাসি খাবার। এমনকি রেস্টুরেন্টে রান্না করার জায়গাটিও সব সময় থাকে অপরিচ্ছন্ন। খাবার রাখার স্থানে সারাক্ষণ মাছি উড়তে দেখা যায় বলে অভিযোগ তুলেছে স্থানীয়রা। এত অনিয়মের পরও প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না বলেও অভিযোগ করছেন ভোক্তারা। এ ছাড়া হোটেলে সকল অনিয়মের সাথে নিম্নমানের খাবার বিক্রি, নেই মূল্য তালিকা ও খাবারের মূল্য বেশি নেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।
রবিবার (৩১-মে) দুপুরে সরেজমিনে মাধবপুর বাজারে কিসমত, রেস্তোরাতে গিয়ে দেখা যায়, খাবারের টেবিল গুলোতে সারাক্ষণ উড়ছে মাছি। রান্না ঘরের পাশেই বাথরুম। রান্নার জায়গাটিও অপরিচ্ছন্ন। হোটেল বয়দের হাতে নেই গ্লাবস ও মাথায় নেই হেডপট। যার ফলে হতে পারে করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত, প্রায় ভোক্তারাই খাবারে চুল পাওয়ার অভিযোগ করছেন কর্তৃপক্ষকে।
কিসমত রেস্তোরাতে খেতে আসা জুয়েল মিয়া নামে এক যুবক জানান, কিসমত হোটেলে গলা কাটা দাম রাখা হয়।
খাবারের মানও ভাল নয়। রেস্তোরার বয়দের হাতে লেগে থাকে ময়লা। মাথায় হেডপট ও হাতে হ্যান্ড গ্লাবস থাকে না। প্রায় সময় খাবারে চুল ও মাছি দেখা যায়। রান্নার পরিবেশও অত্যন্ত নোংরা।
কিসমত রেস্তোরাতে খেতে আসা পৌর শহরের বাসিন্দা জামাল উদ্দিন জানান, মাধবপুরে বাজারে কয়েক বছর রেস্টুরেন্ট ব্যবসা করতে পারলে অনেকেই গাড়ি বাড়ির মালিক হয়ে যান। একটি  থেকে অনেকে ২ থেকে ৩ টি
রেস্টুরেন্টের মালিক হয়ে গেছেন বলেও জানান তিনি। এবং শ্হীনীয় কিছু লোক বলেছেন কিসমত রেস্টুরেন্টের ব্যবাসা করার লাইসেন্স নেই অভিযোগ রয়েছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা স্যানিটেশন কর্মকর্তা মুহিবুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, পৌরসভার ভিতর যে রেস্টুরেন্ট
গুলো রয়েছে সেগুলো দেখেন
পৌর স্যানিটেশন কর্মকর্তা।
পৌর স্যানিটেশন কর্মকর্তা সৃজিত রায় জানান, শীঘ্রই অভিযান পরিচালনা করা হবে এবং সবাইকে শৃঙ্খলার মধ্যে নিয়ে আসা হবে। এ ব্যাপারে মাধবপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়েশা আক্তারের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, শীঘ্রই অপরিচ্ছন্ন রেস্তোরা গুলোতে অভিযান চালানো হবে।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ