1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় সকাল ১০:০৫ আজ বুধবার, ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি




পাকিস্তানকে ঠেকাতে ১৪ হাজার বাঙ্কার নির্মাণ ভারতের

  • সংবাদ সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
  • ১৮২ বার দেখা হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্ট: পাকিস্তানের হামলা মোকাবেলায় সীমান্তে ১৪ হাজারেরও বেশি বাঙ্কার নির্মাণ করেছে ভারত। পাকিস্তান হামলা করলে ওইসব বাঙ্কারে সীমান্তবর্তী লোকজনকে আশ্রয় দেয়া হবে। পাকিস্তানের পরমাণু হামলার হুমকির মুখে বাঙ্কার নির্মাণকে ভারতের যুদ্ধ প্রস্তুতি হিসেবেই দেখা হচ্ছে। এই খবর প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স, ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল ও দ্য মিরর।

 রয়টার্সের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, গত সপ্তাহ থেকেই বাঙ্কার নির্মাণের সিদ্ধান্তের কথা জানায় সরকার। ইতিমধ্যে বাঙ্কার নির্মাণের কাজও চলছে। দুই দেশের মধ্যে চলমান উত্তেজনা ও হামলার ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে, তা কমাতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। জম্মু-কাশ্মীরে বাঙ্কার নির্মাণের ছবিও প্রকাশ করেছে রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বুধবার দুই দেশের সীমান্তরেখায় পাল্টাপাল্টি হামলা ও বিমান ভূপাতিত হওয়ার ঘটনায় সীমান্তবর্তী লোকজন আতঙ্কে রয়েছেন। তাদের মধ্যে যুদ্ধাশঙ্কা তৈরি হয়েছে। এমতাবস্থায় তাদের নিরাপদে রাখতে এসব বাঙ্কার তৈরি করছে ভারত।

পুনাচ জেলার ডেপুটি কমিশনার রাহুল যাদব এ তথ্য নিশ্চিত করে রয়টার্সকে বলেন, পাকিস্তানের পক্ষ থেকে সীমান্ত এলাকায় গোলাবর্ষণ করা হচ্ছে। এতে সাধারণ মানুষের মধ্যে ভীত কাজ করছে। তাই পাকিস্তানের হামলা সত্ত্বেও যেন লোকজন ভীত হয়ে না পড়ে এবং ছোটাছুটি শুরু না করে সে জন্য এসব বাঙ্কার নির্মাণ করা হচ্ছে। সপ্তাহখানেকের মধ্যে এসব বাঙ্কার নির্মাণের কাজ শেষ হবে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারত যুদ্ধের প্রস্তুতি হিসেবে সীমান্ত এলাকার বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে রাখতে বাঙ্কার তৈরি করছে। ভারতের হামলার পর পাকিস্তান পাল্টা হামলা করলে দুই দেশ থেকেই প্রতিরোধের ঘোষণা আসে। এমন পরিস্থিতিতে ভারত যে কোনো সময় পাকিস্তানের হামলার আশঙ্কা করছে।

এদিকে পাকিস্তানের দৈনিক ডনের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মীর থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকালে এ নিয়ে তারা একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রসঙ্গত গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে হামলায় অন্তত ৪৪ সেনা নিহত হন। এই আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ। ভারত এ হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে দাবি করে আসছে।

এই হামলার জেরে গত মঙ্গলবার কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাকিস্তানের বালাকোটে বিমান হামলা চালায় ভারতীয় বাহিনী। হামলায় ২০০ থেকে ৩০০ জঙ্গি নিহত হয় বলে দাবি করেছে দেশটি।

এখানেই থেমে নেই, গত বুধবার পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় দুই যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করেন পাকিস্তানি সেনারা। জবাবে ভারত পাকিস্তানের দুটি যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করে।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ