1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় রাত ১:৩৩ আজ সোমবার, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি




দাপুটে শিক্ষিকা আকলিমা লিলি’র কান্ড:ছাত্রীকে পিটানোর জেরে অভিভাবক শিক্ষকদের মাঝে চরম উত্তেজনা

  • সংবাদ সময় : বুধবার, ৩ অক্টোবর, ২০১৮
  • ২২০ বার দেখা হয়েছে

 সুখ বাদশা, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ রৌমারীতে শিক্ষিকা কর্তৃক ছাত্রীকে বেধরক মারপিটের ঘটনায় এলাকায় শিক্ষক অভিভাবকদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাটি ঘটেছে রৌমারী উপজেলাধীন চর-শৌলমারী ইউনিয়নের বি-পাখীউড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। ওই স্কুলের সহকারি শিক্ষিকা মোছাঃ আকলিমা (লিলি) কর্তৃক  তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী শাহনাজ খাতুন ও  চতুর্থ  শ্রেনীর ছাত্রী জিপসী খাতুনকে বেধরক মারপিটের ঘটনায় ওই প্রতিষ্ঠান প্রধান বরাবর অভিযোগ করেন। ঘটনাটি ঘটে গত ২৪ সেপ্টেম্বর সোমবার। বিষয়টি মিমাংসার লক্ষ্যে ম্যানেজিং কমিটি,  শিক্ষক, ও অভিভাবকদের মধ্যে সমঝোতার লক্ষ্যে কালক্ষেপণ করতে থাকেন।পরে বিষযটি নিয়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে ১ অক্টোবর (রবিবার)
দিনব্যাপি শালিসি বৈঠক চলে।
বৈঠকে উঠে আসে নানা অজানা তথ্য। আকলিমা ২০০৯ সালে সহকারি শিক্ষক হিসেবে বি-পাখীউড়া সরকারি প্রাথামিক বিদ্যালয়ে যোগদান করেন। ওই স্কুলে মোট শিক্ষক সংখ্যা ৭ জন । তার মধ্যে ৫ জনই নারী শিক্ষক। শালিসি বৈঠকে শিক্ষক অভিভাবক ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের উপস্থিতিতে সাক্ষ্য প্রমাণে জানা যায়, আকলিমা বিদ্যালয়ে যোগদানের পর থেকে প্রতিষ্ঠানে যেমন খুশি তেমন চলাফেরা, নিয়ম নীতি না মানা, অনিয়মিত স্কুলে উপস্থিত হওয়া মনগড়া ছুটি কাটানো, ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে উগ্রতা খিটখিটে মেজাজ দেখানো, সহকর্মিদের সাথে অমিল অসংখ্য অভিযোগ তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত হয়। চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী জিপসী অভিযোগ করে বলেন, আকলিমা ম্যাডাম পাতলা-পাতলা ছোট-ছোট জামা ওড়না পইরা  স্কুলে আহে , এমন কথা কওনে আমারে মারতে-মারতে মাটিতে শুয়াইয়া ফালায়।
একই অভিযোগ নাজমারও। জিপসীর চাচা নজরুল জোড়ালো অভিযোগ করে বলেন, বাপ মরা মাইয়াটারে এমন ভাবে মারপিট করা কামডা বালা (ভাল) করে নাই্ । এছাড়া শালিসে উপস্থিত পাখীউড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান দুলাল তার বক্তব্যে বলেন, শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। আর সেই শিক্ষার কারিগর শিক্ষক। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসে শিক্ষক কর্তৃক যখন শিক্ষার্র্র্র্র্র্র্র্র্র্র্র্থীরা নানা নির্যাতনের শিকার হয় তখন আর শিক্ষকের মর্যাদা থাকেনা। তাই তিনি আকলিমা আকতার লিলি’র সহকর্মি ও শিক্ষার্থীদের প্রতি ভাল ব্যাবহারের পরামর্শ দেন এবং প্রতিষ্ঠান চলাকালীন সংযত, ন¤্র , আচরনের করতে বলেন ও মার্জিত পোশাক পরে স্কুলে আসতে বলেন। এব্যাপারে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম বলেন, ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ। তবে বিষয় গুলো আমরা মিমাংসা করার চেষ্টা করছি। এ নিয়ে রৌমারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মণিলাল সিকদার বলেন, এ ব্যাপারে এখনো কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ