1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় রাত ১০:৩১ আজ সোমবার, ১১ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি




কালো টাকা ছড়িয়ে নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করতে চান বুলবুল

  • সংবাদ সময় : শনিবার, ২৮ জুলাই, ২০১৮
  • ১২২ বার দেখা হয়েছে

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রচার প্রচারণায় এখন চলছে ভরা মৌসুম। প্রচার প্রচারণার মাধ্যমে জনগণের মন জয় করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। এবারের রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে ৫ জন মেয়র প্রার্থী। ধারণা করা হচ্ছে মেয়র পদে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন ও বিএনপির মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের মধ্যে।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মনোনীত বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ২০১৩ থেকে শুরু করে ২০১৮ এর নির্বাচন সংক্রান্ত কার্যাবলী শুরুর পূর্ব পর্যন্ত রাজশাহীর মেয়র হিসেবে বহাল ছিলেন। কিন্তু গত মেয়াদে তিনি নগরীর উন্নয়নে খুব একটা অবদান রাখতে পারেননি। উল্টো ২০০৮ এ বিজয়ী আওয়ামী লীগের মেয়র লিটনের সাজানো গুছানো শহরকে উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত করে রাখেন। নজর ছিল না তার নগরীর উন্নয়নের দিকে। অভিভাবক থেকেও অনেকটা অভিভাবকহীন হয়ে পরে রাজশাহী নগরী। শুধু তাই নয় নানা রকম অপকর্ম ও দুর্নীতির জন্য ক্ষমতার বেশির ভাগ সময় তাকে থাকতে হয় কারাগারে। বাকি সময় ব্যস্ত ছিলেন নিজের আখের গুছাতে। এসব নানা রকম অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে জনগণ তার ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছে।

প্রচারেই প্রসার- নির্বাচনের ক্ষেত্রে এই প্রবাদ বাক্যটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় বুলবুল দেখেন যে রাজশাহীবাসী তার কাছ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। তার অন্যতম কারণ তিনি গত নির্বাচনে চটকদার ইশতেহার ও মন ভোলানো প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সিঁকিভাগও পূরণ করেননি। এজন্যই আসন্ন নির্বাচনে তার ওপর থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন রাজশাহীবাসী।

শেষ মুহূর্তে অবৈধ পথে জনসমর্থন বাড়াতে কালো টাকা ছড়াচ্ছে বুলবুল। জনগণের আবেগকে টাকা দিয়ে কিনতে চাচ্ছেন তিনি। শুধু তাই নয় নির্বাচনের নানা কর্মকাণ্ডে তিনি ব্যবহার করছেন এই কালো টাকা, যার সিংহভাগ এসেছে মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে।

২০১৮ এর নির্বাচনে রাজশাহীর মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ১৮ হাজার ১৩৮ জন। এর ভিতর নারী ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ৬২ হাজার ৫৩ জন। সাধারণত মফস্বলের নারীদের সন্তান ও সংসার নিয়ে ব্যস্ত থাকার জন্য তাদের রাজনৈতিক জ্ঞান কিছুটা সীমিত। এজন্য বুলবুল তাদেরকে টার্গেট করে টাকা দিয়ে তাদের ভোট কিনতে চাচ্ছেন। এমনকি জনসমর্থনহীন বুলবুল অনেকটা দিশেহারা হয়ে ছুটছেন কালো টাকার পেছনে। কালো টাকা ছড়িয়ে তিনি জনসমর্থন ও প্রভাব বিস্তার করার অপচেষ্টা করছেন।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ