1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় রাত ১১:২৮ আজ সোমবার, ১১ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি




সাঘাটায় নেশাখোরের হাতে সাংবাদিকের দু’ভাই আহত

  • সংবাদ সময় : বৃহস্পতিবার, ২৯ মার্চ, ২০১৮
  • ১৪১ বার দেখা হয়েছে

সাঘাটা প্রতিনিধি:
গাইবান্ধার সাঘাটায় নেশাখোর সোহেল এর দাবিকৃত টাকা না দেওয়ায় জাতীয় দৈনিক খোলা কাগজ ও স্থানীয় মাধুকর পএিকার সাংবাদিক নুর হোসেন রেইনের ছোট দুই ভাই শামিম ও সুমনকে ধারালো ছোরা দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা । এ ঘটনায় দুইজন আহত হয়েছে। জানা গেছে,সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব শিমুল তাইড় (আদর্শপাড়া) গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেন (সাংবাদিক) ছেলে আরিফুল ইসলাম (শামিম), বেশ কিছুদিন ধরে বোনারপাড়া বাজারে কম্পিউটার দোকান দিয়ে জিবিকা নির্বাহ করে আসছেন। শিমুল তাইড় গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে, সোহেল কিছু দিন পূর্ব হতে মাঝে মধ্যেই শামিমের কাছ থেকে নেশা করার জন্য টাকা দাবি করে আসছিল। ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার রাতে শামিম দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে ছোট ভাইয়ের বাড়ির গেটের সামনে পাকা রাস্তায় পৌঁছা মাত্র পরিকল্পিত ভাবে ওৎ পেতে থাকা সোহেলসহ অচেনা দুই তিন জন সন্ত্রাসী শামিমের পথরোধ করে মারপিট করতে থাকে। সহেলের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে পিটে চোট দিয়ে রক্তাক্ত কাটা জখম করে। সে মাটিতে লুটে পড়লে পকেটে থাকা পনেরো হাজার টাকা বের করে নেয়। ওই সময় শামিমের ছোট ভাই আসাদুজ্জামান (সুমন)  শামিমকে রক্ষার চেষ্টা করলে সোহেল ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো ছোরা দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় চোট দেয়, হাত দিয়ে ঠেকানোয় হাতের পাতায় মধ্যমা, তর্জনী ও কনিষ্ট তিনটি আঙ্গুলের গোড়ালিতে গুরুত্বর রগকেটে রক্তাক্ত জখম হয়।হৈ-চৈ শুনে আশ-পাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা সুমনের বাড়িতে প্রবেশের গেট ভাংচুর করে।এতে পাঁচ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে।পরবর্তীতে আবারো মারপিট, খুন জখমের হুমকি দিয়ে ঘটনা স্থল ত্যাগ করে তারা। আহতদের বড় ভাই সাংবাদিক নুর হোসেন রেইন,বাড়িতে এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় শামিমকে অটোভ্যান যোগে বোনারপাড়া সবুজ বাংলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যাবস্থা ও গুরুতর আহত সুমনকে মাইক্রোবাস যোগে বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করানো হয়। বিষয়টি সাঘাটা থানা অফির্সাস ইনর্চাজ মোস্তাফিজুর রহমান এবং বোনারপাড়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনর্চাজ মাহবুবকে জানালে পুলিশ ফোর্স ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন। এ ব্যাপারে গতকাল সাঘাটা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ