1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় দুপুর ১:৩০ আজ মঙ্গলবার, ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৭শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি




বাচ্চা কোলে টিভিতে এসে অপু বললেন তিনি শাকিবের স্ত্রী

  • সংবাদ সময় : সোমবার, ১০ এপ্রিল, ২০১৭
  • ১৫৪ বার দেখা হয়েছে

২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল শাকিবের সঙ্গে আমার বিয়ে হয়। আমাদের আট মাস বয়সী ছেলে সন্তানও আছে। আমি শাকিবের স্ত্রী।’

সোমবার বিকেলে হঠাৎ একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে এসে এ কথা ফাঁস করেন চিত্র নায়িকা অপু বিশ্বাস। লাইভ অনুষ্ঠানে যখন কথা বলছিলেন তখন তার কোলে ছিল একটি শিশু। ওই শিশুকে তিনি তার সন্তান বলে পরিচয় করিয়ে দেন।

অপু বিশ্বাস বলেন, ‘চিত্রনায়ক শাকিবের সঙ্গে আমার বিয়ে হয় খুবই গোপনে। শাকিবের ঢাকার বাসায় ওই বিয়ে হয়। বিয়েতে শাকিব ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তার মা, চাচাতো ভাই এবং আমার মা। শাকিবকে বিয়ে করতে ধর্ম পরিবর্তন করেছিলাম আমি। বিয়ের সময় তার নাম হয় অপু ইসলাম খান। শাকিবের ইচ্ছাতেই এতদিন বিয়ের বিষয়টি গোপন রাখা হয়। বর্তমানে আমার এবং শাকিবের সংসারে আট মাস বয়সী এক ছেলে সন্তান রয়েছে। ছেলের নাম আব্রাহাম খান জয়।’

তিনি বলেন, ‘কলকাতার একটি হাসপাতালে ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর ছেলের জন্ম হয়। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর শাকিব আমাকে বলে নিজেকে লুকিয়ে রাখতে। তাই আমি তেমনটা করেছি। বাচ্চা নিয়ে আমাকে অনেক সংগ্রাম করতে হয়েছে। আমি দীর্ঘদিন আড়ালে ছিলাম। পাঁচ মাস হয় ঢাকায় এসেছি। দীর্ঘ নয় মাস আমি কলকাতা, ব্যাংকক ও সিঙ্গাপুরে ছিলাম। সন্তান হওয়ার সময় শাকিব আমার পাশে ছিল না। তবে ঢাকায় আসার পর সন্তানকে দেখতে যায়। সন্তানের সব খরচও দেয়।’

কাঁদতে কাঁদতে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘শাকিবের ভালো চিন্তা করেই আমি বিয়ের বিষয় গোপন রেখেছিলাম। সম্মান চেয়েও পাইনি। বারবার ছোট হয়েছি। তাকে অনেক ছাড় দিয়েছি। অনেক ধৈর্য ধরেছি। ধৈর্য্যের সীমানায় পৌঁছে এখন সব বলছি।’অপু বিশ্বাস তার ছেলেকে এমনভাবে বড় করতে চান যেন তার দ্বারা কোনো মেয়ে প্রতারিত না হয়। তিনি বলেন, আমার ছেলের দ্বারা যেন কোনো মেয়ে প্রতারিত না হয়, আমি সে চেষ্টাই করব।

বাচ্চাকে নিয়ে আপনি নিরাপদ কি না- সংবাদ উপস্থাপকের এমন প্রশ্নের জবাবে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আমি বলতে পারছি না আমার কী হবে, আমি আবারও দর্শকদের মধ্যে আসবো।’

অপু বলেন, শাকিবের জন্য আমি আমার ক্যারিয়ারের কথা ভাবিনি। শাকিবের জন্য নিজের ক্যারিয়ার বিসর্জন দিয়েছি। আমার প্রাণের ছবি ‘বসগিরি’ শাকিবের জন্য ছেড়ে দিয়েছি।তিনি বলেন, ‘শাকিব যদি এই অনুষ্ঠান দেখে থাকে তবে ওর (শাকিবের) দায়িত্ব হবে দূর থেকে ওকে (ছেলেকে) আদর করে দেওয়া। বাবা হয়ে আমার ছেলেকে যেন না ঠকায়। তাদের আশপাশে তো অনেক লোক আছে, তারাও তো বাবা। তারাও তো তাদের সন্তানদের আদর করে। আমি কী অন্যায় করেছি যার জন্য এত শাস্তি পেতে হলো?’

২০০৬ সালে ‘কোটি টাকার কাবিন’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে শাকিব-অপুর জুটি গড়ে ওঠে। এরপর কয়েকটি ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র আসে তাদের জুটিতে।দীর্ঘ সময় লোকচক্ষুর আড়ালে থাকার সময়ে শাকিব তার নতুন নায়িকা হিসেবে বেছে নেন টিভি উপস্থাপিকা বুবলীকে। অপুর দাবি, তার ছেড়ে যাওয়া সিনেমাতেই মূলত কাজ করার সুযোগ পায় বুবলি।

শিগগিরই ফের কাজে ফেরার প্রত্যয় ব্যক্ত করে তিনি বলেন, কি কি সিনেমা অসমাপ্ত রেখেছিলাম, সব মনে আছে। বুবলী কাজ করছে, করুক মন্তব্য করে তার জন্য শুভকামনা জানান অপু। তবে তিনি বলেন, বুবলীর বুঝতে পারা উচিত, শকিবের স্ট্যাটাসটা কি। শাকিব আর আমার সম্পর্কটা কি।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ