1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় সকাল ৭:৪৪ আজ সোমবার, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি




৪ গুণ দামে ভূমি অধিগ্রহণ আইন অনুমোদন

  • সংবাদ সময় : সোমবার, ৩ এপ্রিল, ২০১৭
  • ২৬৪ বার দেখা হয়েছে

জনস্বার্থে ধর্মীয় উপাসনালয়ের ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষমতা রেখে ‘স্থাবর সম্পত্তি অধিগ্রহণ ও হুকুমদখল আইন ২০১৭’ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার (০৩ মার্চ) সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়।
বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, অধিগ্রহণের জন্য ক্ষতিপূরণ ৬০ দিনের স্থলে ১২০ দিনের মধ্যে দেওয়ার বিধান রাখা হয়েছে।
ভূমি অধিগ্রহণের জন্য ক্ষতিপূরণের পরিমাণ ক্ষেত্র বিশেষে বেসরকারি ক্ষেত্রে ৪ গুণ ও সরকারি ক্ষেত্রে ৩ গুণ বাড়ানো হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এতোদিন জমি অধিগ্রহণের সময় ক্ষতিপূরণ দেওয়া হত ১৯৮২ সালের একটি অধ্যাদেশ অনুসরণ করে। সামরিক শাসনের সময় জারি করা ওই অধ্যাদেশ উচ্চ আদালতের নির্দেশে বাংলা করে নতুন আইন করা হচ্ছে।আগের আইন অনুযায়ী ধর্মীয় উপাসানালয় যেমন- মসজিদ, মন্দির, প্যাগোডা, কবরস্থান, শ্মশানের ভূমি অধিগ্রহণ করা যেতো না।
তিনি বলেন, ধর্মীয় উপাসনালয়, কবরস্থান এবং শ্মশান হিসেবে ব্যবহৃত কোনো ভূমি অধিগ্রহণ করা যাবে না, এখনও সাধারণভাবে সে বিধানই আছে। তবে শর্ত থাকে যে, প্রয়োজনে বা জনস্বার্থে একান্ত অপরিহার্য হলে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ব্যক্তি বা সংস্থার অর্থে স্থানান্তর ও পুনর্নির্মাণ সাপেক্ষে কেবল উক্ত সম্পত্তি অধিগ্রহণ করা যাবে।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, রাস্তার ওপর একটা মসজিদ পড়ে গেলো, অপসারণ না করলে রাস্তা বাধাগ্রস্থ হচ্ছে তখন এটাকে সরিয়ে রিলোকেট করে মসজিদ পুনর্নির্মাণ করে রাস্তাটা সঠিক ভাবে করা যাবে।বাজারদরের থেকে তিন থেকে চারগুণ পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।
তিনি জানান, সরকারিভাবে জমি অধিগ্রহণে ক্ষতিপূরণের পরিমাণ জমির দামের দেড়গুণ থেকে বাড়িয়ে তিনগুণ এবং বেসরকারিভাবে জমি অধিগ্রহণে ক্ষতিপূরণের পরিমাণ চারগুণ বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। বাজারদরের ওপর অতিরিক্ত ২০০ ভাগ যুক্ত করা হয়েছে। একটি জমির মূল্য যদি এক কোটি টাকা হয় তাহলে আরও দুই কোটি টাকা যুক্ত হয়ে তিন কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ (সরকারি অধিগ্রহণে) পাবেন।
তিনি বলেন, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানও জনস্বার্থে ‘কখনও কখনও’ ভূমি অধিগ্রহণ করতে পারে। কোথায় স্কুল হবে, কোনো একটা প্রতিষ্ঠান হবে, সেজন্য বেসরকারি প্রতিষ্ঠান অধিগ্রহণ করতে পারে কিন্তু ক্ষতিপূরণ বেশি দিতে হবে। বেসরকারি কোনো প্রতিষ্ঠান ভূমি অধিগ্রহণ করলে অতিরিক্ত আরও ৩০০ গুণ দিতে হবে, এর মানে ক্ষতিপূরণ ৪০০ গুণ হবে।
ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সময় ১২ মাসের জমি কেনাবেচার দলিলের গড় বিবেচনায় নিয়ে জমির দাম নির্ধারণ করা হবে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।
আগে অতিরিক্ত জেলা বা দায়রা জজ পর্যায়ের কর্মকর্তাকে আরব্রিট্রেশন নিয়োগ দেওয়া হত। প্রস্তাবিত আইনে যুগ্ম-জেলা জজ বা সাব-জজ পর্যায়ের কর্মকর্তাকে ওই পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। তবে আপিলে থাকবেন জেলা জজ পর্যায়ের কর্মকর্তা।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ