1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় সকাল ৯:০১ আজ রবিবার, ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি




বোলিং নয়, ব্যাটিংয়ের কারণে হেরেছি

  • সংবাদ সময় : রবিবার, ১২ মার্চ, ২০১৭
  • ৫৭৮ বার দেখা হয়েছে

সত্যিকারের টেস্ট চেতনা যাকে বলে, একমাত্র তাঁর ব্যাটিংয়েই তা দেখা গেছে। ‘অবিশ্বাস্য’ হারের পর বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম সাংবাদিকদের সামনে এলেন কেমন যেন জড়সড় হয়ে। মুখে হাসি নেই, চোখ দুটিতে কুয়াশা জড়িয়ে। স্বীকার করলেন ব্যাটিংয়ে নিজেও ভালো করতে পারেননি। হারের দায় দেখছেন পুরো ব্যাটিং ইউনিটেরই। একই সঙ্গে ঢাল হয়ে আড়াল করছেন ব্যাটসম্যানদের খামতিগুলো। বরাবর যেমন বলেন, ঠিক সেভাবেই পরের টেস্টে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিলেন। আর দুর্দান্ত জয়ের জন্য প্রতিপক্ষ হেরাথ বাহিনীকে জানালেন অভিনন্দন।
মুশফিকুর রহিমের এই অভিব্যক্তিই গল টেস্টে বাংলাদেশের প্রতীক হয়ে থাকল। জয় না হোক, অন্তত ড্রয়ের আশা নিয়ে শুরু হওয়া শেষ দিনটায় দুপুর না গড়াতেই বাংলাদেশের হার লেখা হয়ে গেল! মুশফিকুর রহিমের এই অভিব্যক্তিই গল টেস্টে বাংলাদেশের প্রতীক হয়ে থাকল। জয় না হোক, অন্তত ড্রয়ের আশা নিয়ে শুরু হওয়া শেষ দিনটায় দুপুর না গড়াতেই বাংলাদেশের হার লেখা হয়ে গেল! l এএফপি* ড্রয়ের কি কোনো আশা ছিল?
মুশফিকুর রহিম: হ্যাঁ, সে আশা তো ছিলই। আমাদের দুই ওপেনার আগের দিন ভালো ব্যাটিং করেছে। পঞ্চম দিনের উইকেট হিসেবে খুব ভালো উইকেট ছিল এটি। দিনের প্রথম এক ঘণ্টা এবং প্রথম সেশনটি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু দুঃখজনকভাবে আমরা ভালো কিছু করতে পারিনি। প্রথম ঘণ্টাতেই পাঁচ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ফেলায় কাজটা কঠিন হয়ে পড়ে। আর ম্যাচ যখন জেতা যাবে না বোঝা যায় এবং প্রতিপক্ষ লেংথ-লাইন ঠিক রেখে বোলিং করে যায়, তখন তা আরও দুরূহ। কিন্তু আগেই যেটি বললাম, দ্রুতই পাঁচটি উইকেট হারিয়ে চড়া মূল্য দিতে হলো।
* এ ম্যাচ থেকে কী পেলেন?
মুশফিক: সৌম্য ভালো ব্যাটিং করেছে। তামিমও ভালো করেছে। ভালো হয়েছে বোলিংটাও। যদিও বলা যায় বোলিং আরও ভালো হতে পারত। উইকেট ছিল ফ্ল্যাট। তবে আমাদের যে পরিকল্পনা ছিল, আমরা তা প্রয়োগ করতে পারিনি। তিন বিভাগেই আমরা শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে গেছি। শ্রীলঙ্কা যোগ্যতর দল হিসেবে জিতেছে।
* হেরাথকে কীভাবে মূল্যায়ন করবেন?
মুশফিক: হেরাথ চ্যাম্পিয়ন বোলার। আমরা আগেই জানতাম, সে-ই আমাদের বড় হুমকি হবে। তবে আমাদের আরও ভালো ব্যাটিং করা উচিত ছিল। বাঁহাতি স্পিনার হিসেবে দারুণ কীর্তি গড়ায় তাকে অভিনন্দন। আশা করি সে আরও অনেক দিন শ্রীলঙ্কার হয়ে খেলবে এবং অর্জনের খাতাটা তার ভারী হবে।
* ব্যাটসম্যানদের প্রয়োগক্ষমতা ঠিকঠাক ছিল বলে মনে হয় আপনার কাছে?
মুশফিক: আসলে ব্যাটসম্যানদের মানসিক অবস্থা ঠিকঠাক না থাকলে একটা বলেই সে আউট হয়ে যেতে পারে। আমরা শ্রীলঙ্কানদের মতো খেলতে পারিনি। ওদের উপুল থারাঙ্গা দ্বিতীয় ইনিংসে সেঞ্চুরি করেছে। উইকেট ভালো ছিল। আমাদের ব্যাটসম্যানদের মানসিকতা আমাকে হতাশ করেছে। আগের দিনও আমাদের ভালো আশা ছিল। তামিম-সৌম্য ভালো জুটি গড়েছে। আমরা ভেবেছি প্রথম সেশনে যদি আমরা কম উইকেট হারাই তাহলে ড্রয়ের সুযোগ থাকবে। কিন্তু আমরা পারিনি। এটা আমাদের বড় ব্যর্থতা। একটা সুযোগ হাতছাড়া হলো, শ্রীলঙ্কা যদিও ভালো দল। আরও একটা ম্যাচ আছে আশা করি আমরা সেখানে ভালো করতে পারব।
* সৌম্য ৩৯ বলে ৫৩, এটা কি ভালো ব্যাটিং?
মুশফিক: প্রতিপক্ষ যখন দেখবে আমাদের জয়ের কোনো সম্ভাবনাই নেই, তখন তারা নানাভাবে আক্রমণ করবে। স্লিপে ফিল্ডার থাকবে, সিলি পয়েন্ট থাকবে, ক্যাচিংয়ে কয়েকজন ফিল্ডার থাকবে। এ অবস্থায় ঠুকে ঠুকে সারা দিন খেলা কঠিন। এখানে স্বাভাবিক খেলাটাই খেলা উচিত। এদিক দিয়ে বলব, সৌম্য আগের দিন ভালো ব্যাটিংই করেছে। তবে আজ (কাল) আমাকে সে হতাশ করেছে। গতকাল আপনি দুই শ করলেও পরের দিন আপনাকে অন্যভাবে খেলতে হবে। এভাবে খেললে দলের জন্য চাপ হয়ে যায়। আমাদের সবার গড় ৩০-৩৫-এর মধ্যে। এ জন্যই যারা সুযোগ পাবে তাদের আরও দায়িত্ব নিয়ে খেলা উচিত। বিশেষ করে ওপরের পাঁচ-ছয়জন ব্যাটসম্যানের এ রকম দায়িত্ব নিতে হবে। পরের টেস্টে আমাদের এমন পরিকল্পনাই থাকবে।
* দলের ফোকাস (মনোযোগ) কি নড়ে গেল?
মুশফিক: গত দুটি সিরিজের কথা বলতে পারি, আজকের (কাল) মতো খারাপ কিন্তু হয়নি। এখানেও প্রথম ইনিংসে আমরা ৩১২ করেছি। আমি বলি এটি নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। এই সমস্যা আমাদের কাটিয়ে উঠতে হবে। গত দুটি সিরিজেও আমাদের সুযোগ এসেছিল, জয় কিংবা ড্রয়ের। এখানেও ১০ উইকেটে ৯৮ ওভার ব্যাটিংয়ের চ্যালেঞ্জ ছিল। এ সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারছি না। মানসিকভাবেই পারছি না।
* অনেকে ব্যাকরণ মেনে ব্যাট করছেন না, এটাও মানসিক বাধা?
মুশফিক: ভালো বল, স্টাম্পে থাকা বলে শট খেলতে গেলে আউট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই আপনাকে বাইরের বল খেলেও রান নিতে হবে। আমি অন্তত তা-ই বিশ্বাস করি। প্রথম ইনিংসে সাকিবের আউটটাকে দুর্ভাগ্যজনক বলব। আজ (কাল) আমার আউট নিয়েও তাই বলব। লেগ স্লিপ ছিল না, শর্ট ফাইন লেগ ছিল না। এ বলে যদি রান না করি কোন বলে করব? এটা বলতে পারেন, যেভাবে শটটা খেলার দরকার সেটা আমরা পারিনি।
* একাদশ কি ঠিক ছিল? ওদের তিন স্পিনার ভালো করেছে, আর আমরা নিলাম তিন পেসার?
মুশফিক: আমরা যদি এখানে ড্র করতাম, তাহলে এ প্রশ্নটা আসত না। আমরা কিন্তু বোলিংয়ের কারণে নয়, ব্যাটিংয়ের কারণে হেরেছি। এখানে এতটা স্পিন ছিল না যে ব্যাটিংয়ে সমস্যা হবে। আর শুভাশিসের ওই বলটা (কুশল মেন্ডিসের বিপক্ষে) নো না হলে আরও দু-একটা উইকেট পড়েও যেতে পারত।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ