1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় দুপুর ১২:৪৪ আজ বুধবার, ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি




গাইবান্ধায় বিএফএফ-সমকাল পঞ্চম জাতীয় স্কুল বিজ্ঞান বিতর্ক প্রতিযোগিতা

  • সংবাদ সময় : শনিবার, ১১ মার্চ, ২০১৭
  • ২৩৯ বার দেখা হয়েছে

স্টাফ রিপোর্ট:
তরুণ প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানের প্রতি অনুরাগী এবং যুক্তিবাদী মানসিকতায় গড়ে তোলার লক্ষ্যে বিএফএফ-সমকাল পঞ্চম জাতীয় স্কুল বিজ্ঞান বিতর্ক প্রতিযোগিতা গতকাল শনিবার গাইবান্ধায় বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। গাইবান্ধা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে সকাল ১০ টায় শুরু হয়ে বেলা ২ টা পর্যন্ত চলে এ প্রতিযোগিতা। দৈনিক সমকাল ও ফ্রিডম ফাউণ্ডেশনের আয়োজনে এবং সমকাল-সুহৃদ সমাবেশের সহযোগিতায় ওই প্রতিযোগিতায় জেলার ৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা প্রবল বৃষ্টি উপেক্ষা করে অংশ নেয়। প্রতিযোগিতায় নর্দান ইন্টান্যাশনাল হাইস্কুল চ্যাম্পিয়ন এবং আহম্মদ উদ্দিন শাহ শিশু নিকেতন স্কুল এন্ড কলেজ দল রানার্স আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। শ্রেষ্ঠ বক্তা নির্বাচিত হয় নর্দান ইন্টান্যাশনাল হাইস্কুল দলের মোছাঃ সেঁজুতি হাসান। চ্যাম্পিয়ন নর্দান ইন্টান্যাশনাল হাইস্কুল দলে ছিলো দলনেতা মোছাঃ সেঁজুতি হাসান, মোঃ  মাহির আসেফ হিমেল ও সাদিয়া আকতার এবং রানার্স আপ আহম্মদ উদ্দিন শাহ শিশু নিকেতন স্কুল এন্ড কলেজ দলে ছিলো দলনেতা ফাহমিদা আকতার দিশ্,া জারিন তসনিন দিপা ও ইফাত মারজান মাহবিয়াত।
প্রতিযোগিতা শেষে অংশগ্রহণকারিদের মধ্যে সনদ, ক্রেস্ট ও উপহার সামগ্রী তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি গাইবান্ধা পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবির মিলনসহ অন্য অতিথিবৃন্দ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক সঙ্গীতজ্ঞ প্রমোতোষ সাহা, বিশিষ্ট কবি, সাহিত্যিক ও কলাম লেখক ডা. আব্দুর রউফ বাদশা প্রমূখ। সভাপতিত্ব করেন গাইবান্ধা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিসেস শাহানা বানু। পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সমকাল সুহৃদ সমাবেশ গাইবান্ধা জেলা কমিটির উপদেষ্টা নাট্যকার মো. আলম মিয়া, সভাপতি অঞ্জলী রানী দেবী, সহ-সভাপতি কবি হাফিজুল হিলালী বাবু, সাধারণ সম্পাদক নিয়াজ আকতার ইয়াসমিন, শহিদুল ইসলাম, আব্দুস সামাদ, সবুজ চক্রবর্ত্তী, কবি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সমকালের জেলা প্রতিনিধি উজ্জল চক্রবর্ত্তী প্রমুখ। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্র“পের সেলসৃ এসিসটেন্ট মো. মোস্তাফিজার রহমান, এসিআই পিওর সল্ট এর বগুড়া এরিয়ার সিনিয়র ম্যানেজার মো. রাশেদুল ইসলাম, এজেন্টসহ অন্য প্রতিনিধিবৃন্দ। প্রতিযোগিতায় গাইবান্ধা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, আহম্মদ উদ্দিন শাহ শিশু নিকেতন স্কুল এণ্ড কলেজ, গাইবান্ধা সদর উপজেলা মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, আমার বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যাপীঠ, নর্দাণ ইন্টারন্যাশনাল হাইস্কুল ও গাইবান্ধা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ দল অংশ নেয়।
প্রতিযোগিতায় মডারেটর ছিলেন জয়পুরহাট সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সমীর কুমার সরকার। বিচারক ছিলেন গাইবান্ধা সরকারি কলেজের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জীবন কুমার সাহা ও গ্রন্থকার সাহিত্যিক হাফিজুল হিলালী বাবু। প্রতিযোগিতা চলাকালে বিপুল সংখ্যক দর্শক, শিক্ষকমণ্ডলী ও ছাত্রছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি পৌর মেয়র তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান যুগ বিজ্ঞানের যুগ। ধনী দরিদ্র সকলেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কল্যাণে ডিজিটাল সুবিধার সুফল ভোগ করছে। তথ্য প্রযুক্তি সেবা এখন মানুষের নাগালের মধ্যে। তিনি আরও বলেন, বিতর্ক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা যুক্তিতর্ক আয়ত্ব করে নিজেদের মেধার বিকাশ ঘটাতে পারে। এতে শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ ভবিষ্যত ও কর্মক্ষেত্রের জন্য আত্মনির্ভরশীল হয়ে ওঠে। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলার ক্ষেত্রে তাদের ভীতিও দুর হয়ে যায়। সেই সাথে ঘটে তাদের প্রকৃত মেধার বিকাশ ও চর্চা। তিনি প্রতিবছরের মত এবারের আয়োজনের সার্থকতা কামনা করে আয়োজক সমকাল ও অন্যান্য সহযোগিদের ধন্যবাদ জানান।
বিশেষ অতিথি প্রমোতোষ সাহা বলেন, বিজ্ঞান বিষয়ক বিতর্ক শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিজ্ঞানের প্রতি গবেষণাধর্মী, উদ্ভাবনী ও যুক্তিবাদী মানসিকতার বিকাশ ঘটায়। সামাজিক দায়বদ্ধতা হিসেবে শিল্প-সাহিত্য চর্চায় সমকালের এধরণের আয়োজন শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে বলে উলে­খ করে তিনি আয়োজক সমকাল ও বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউণ্ডেশনকে ধন্যবাদ জানান।
ডা. আব্দুর রউফ বাদশা বলেন, পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি সৃজনশীল দৈনিক সমকালের এধরণের আয়োজন সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। তিনি আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে প্রতিবছর আয়োজন অব্যাহত রাখার আহবান জানান।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ