1. aftabguk@gmail.com : aftab :
  2. ashik@ajkerjanagan.net : Ashikur Rahman : Ashikur Rahman
  3. chairman@rbsoftbd.com : belal :
  4. ceo@solarzonebd.com : Belal Hossain : Belal Hossain
×
     

এখন সময় দুপুর ২:৫৬ আজ বুধবার, ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি




যে খাবার খেলে দর্ঘীজীবী হবেন

  • সংবাদ সময় : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০১৭
  • ১৯৮ বার দেখা হয়েছে

সবাই বাঁচতে চায়, সুস্থভাবে এর্ বেশিদিন। মানুষ কিভাবে দীর্ঘজীবী হতে পারে কিংবা কিভাবে তারা রোগ প্রতিরোধ করতে পারে সে বিষয়ে গবেষণার শেষ নেই।
পাশ্চাত্যে এনিয়ে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং চিকিৎসাশাস্ত্রে নানা গবেষণা হচ্ছে। লন্ডনের ইমপেরিয়াল কলেজের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, প্রতিদিন ৮০০ গ্রাম নানা ধরনের ফল এবং সবজি খাওয়া হলে দীর্ঘজীবী হবার সম্ভাবনা বাড়ে।
তবে ৮০০ গ্রাম ফল এবং সবজি একবারে না খেয়ে দিনে ১০বার ভাগ করে খেতে হবে। সেজন্য প্রতিবার ৮০গ্রাম করে বিভিন্ন ধরনের ফল এবং সবজি খেতে হবে।
ইমপেরিয়াল কলেজের গবেষকরা বলছেন, এভাবে খাদ্যাভ্যাস গড়ে তুললে পৃথিবীতে প্রতি বছর প্রায় ৮০ লাখ মানুষ অপরিণত মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পাবে।
গবেষকরা বলছেন, এমন কিছু ফল এবং সবজি আছে যেগুলো খেলে ক্যান্সার এবং হৃদরোগ প্রতিরোধ করা যায়।

এ গবেষণার উপসংহারে পৌঁছানের জন্য ৯৫টি আলাদা গবেষণার তথ্য-উপাত্তকে একত্রিত করা হয়েছে। সব মিলিয়ে প্রায় ২০ লাখ মানুষের খ্যাদ্যাভাসের চিত্র উঠে এসেছে।
সবুজ শাক-সবজি, হলুদ রংয়ের সবজি – বিশেষ করে ক্যাপসিকাম এবং ফুলকপি-বাঁধাকপি জাতীয় সবজি খেলে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমবে বলে গবেষকরা বলছেন।
হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি কমানোর জন্য আপেল, নাশপাতি, লেবু জাতীয় ফল, সালাদ, সবুজ পাতার শাক বেশ কার্যকরী হতে পারে বলে বলে গবেষকরা বলছেন।

তবে প্রতিদিন ৮০০ গ্রামের বেশি ফল এবং সবজি খেলে স্বাস্থ্যের জন্য আরো বেশি উপকার হবে কি না সে বিষয়ে গবেষকরা নিশ্চিত নয়।
কিন্তু বেশিরভাগ মানুষ এর অর্ধেক পরিমাণ অর্থাৎ ৪০০ গ্রাম ফল এবং সবজি খেতে পারেন না। তবে দীর্ঘদিন বাঁচতে হলে অবশ্যই খাদ্য তালিকায় ফলের পরিমান বাড়াতে হবে।




সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ